Banglar Chokh | 澳洲幸运20开奖官网直播

কালবেলায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২১:৩০, ২১ মে ২০২৩

কালবেলায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

লোগো

দৈনিক কালবেলা পত্রিকায় ‘মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আসছে, প্রস্তুত সরকার’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

রোববার (২১ মে) গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মন্ত্রণালয় বলছে, দৈনিক কালবেলা পত্রিকায় ‘মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আসছে, প্রস্তুত সরকার’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়েছে।

ওই সংবাদের একটি অংশে সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে হেয় করতে, ‘তিনি মন্ত্রী হওয়ার আগে একটি চীনা প্রতিষ্ঠানের লবিস্ট হিসেবে কাজ করতেন’ মর্মে যা উল্লেখ করা হয়েছে তা সর্বৈব মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নামে এধরনের মিথ্যাচারের মাধ্যমে তার মানহানির পাশাপাশি সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করা হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে।
উল্লেখ্য, রোববার  ‘মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আসছে, প্রস্তুত সরকার’ শিরোনামে একটি খবর প্রকাশ করে কালবেলা। যেখানে দাবি করা হয়, বাংলাদেশের ওপর আরও মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আসছে। মানবাধিকার ইস্যু ছাড়াও গণতন্ত্র খর্ব, রাজনৈতিক নিপীড়ন, দুর্নীতিসহ বিভিন্ন কারণে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার সঙ্গে জড়িত সাবেক ও বর্তমান কয়েকজন কর্মকর্তা এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের ওপর চলতি মাসেই নতুন মার্কিন নিষেধাজ্ঞার আশঙ্কা করা হচ্ছে। তবে যে কোনো ধরনের নিষেধাজ্ঞা মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছে সরকার।

এই প্রতিবেদনের বিষয়ে সচিবালয়ে তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘প্রথমত যে পত্রিকায় লিখেছে, তাদের জিজ্ঞেস করুন। আমার এ বিষয়ে কোনো কিছু জানা নেই। তারা কোত্থেকে খবর পেয়েছে, তাদের জিজ্ঞেস করলে ভালো হয়। আমাদের এ ব্যাপারে কোনোকিছু জানা নেই। আর স্যাংশন, পাল্টা স্যাংশন- এগুলো দিয়ে কোনো লাভ হয় না। বিষয়টি ইতোমধ্যেই প্রমাণিত।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেকেই স্যাংশন দিয়ে রেখেছে গত কয়েক দশক ধরে। কই ইরানের সরকার তো পড়ে যায়নি! ইরানের সরকার বহাল তরিয়তে আছে। তারপর কিউবার বিরুদ্ধে স্যাংশন ছিল বহু বছর। কিউবাকে টলাতে পারেনি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কয়েক মাইল দূরে, কিউবার সরকার পরিবর্তন হয়নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘মিয়ানমারের বিরুদ্ধে বহু বছর ধরে বহু স্যাংশন। কই সেখানে তো সরকার পরিবর্তন হয়নি। রাশিয়ার বিরুদ্ধেও অনেক স্যাংশন। সেই স্যাংশন অমান্য করে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ তাদের কাছ থেকে আমদানি করছে। ভারত তো করছে, অনেকেই করছে। তো এগুলো দিয়ে খুব একটা লাভ হয় না।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়